ঢাকা, সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ , , ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪০

ওপেক থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে কাতার

কান্ট্রি করেসপন্ডেন্ট । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: ডিসেম্বর ৩, ২০১৮ ১:৪১ দুপুর

কাতার থেকে :: পেট্রোল রপ্তানিকারক দেশগুলোর জোট ওপেক ছেড়ে ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে বেরিয়ে যাবে সদস্য দেশ কাতার। দেশটির জ্বালানি মন্ত্রী সাদ আল-কাবি সোমবার এই ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ওপেকের ১৫টি সদস্য দেশের মধ্যে সবচেয়ে কম তেল উৎপাদন করে কাতার। কিন্তু তারা বিশ্বের সর্ববৃহৎ তরল প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানিকারক দেশ। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে তাদের ভূমিকা পুনর্মূল্যায়ন করতে এবং গ্যাস শিল্পসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করতে তারা ওপেক ত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

‘কাতার জানুয়ারি ২০১৯ থেকে ওপেক ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সংস্থাটিকে এই সিদ্ধান্ত আজ সকালে জানানো হয়েছে,’ এক সংবাদ সম্মেলনে জানান জ্বালানি মন্ত্রী। তবে এই সপ্তাহে ভিয়েনায় ওপেকের সম্মেলনে যোগ দেবে কাতার, জানান তিনি।

ডিসেম্বর ৬-৭ তারিখে ওপেক ও এর মিত্র দেশগুলোর সম্মেলনে তেল রপ্তানির পরিমাণ কমিয়ে দেয়ার বিষয়ে আলোচনা করা হবে। রাশিয়া ওপেকের সহযোগী দেশগুলোর একটি।

আল-কাবি বলেন এই সিদ্ধান্ত ওপেকের জন্য সহজ ছিল না কারণ, ৫৭ বছর ধরে তারা এই সংস্থার সদস্য। কিন্তু সংস্থাটির তেল উৎপাদনের বিষয়ে সিদ্ধান্তে কাতারের মতামতের গুরুত্ব ছিল সামান্যই।

কাতারের জ্বালানি মন্ত্রী জানান, তার দেশ তেলের বদলে লিকুইড নাচারাল গ্যাস বা এলএনজি উৎপাদনের ওপর জোর দিবে। তারা বছরে ৭৭ মিলিয়ন টন থেকে বাড়িয়ে ১১০ মিলিয়ন টন এলএনজি উৎপাদন করবে।

তিনি আরও বলেন এই সিদ্ধান্ত রাজনৈতিক নয়। ওপেকের অঘোষিত নেতৃস্থানীয় দেশ সৌদিসহ চারটি আরব দেশ জুন ২০১৭ থেকে কাতারের ওপর রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করে।