ঢাকা, সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ , , ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪০

কঠোর নিরাপত্তা আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব ঘিরে

নিজস্ব প্রতিবেদক । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: জানুয়ারি ১৯, ২০১৯ ৭:০৮ সকাল



ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব উপলক্ষে উদ্যান, শাহবাগ ও রমনা এলাকাসহ রাজধানীতে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে পুলিশ। থানা পুলিশ, মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি), সাদা পোশাকের গোয়েন্দা পুলিশ নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করছেন।

বিজয় উৎসব উপলক্ষে আজ সকাল ১১টা থেকে গণজমায়েত শুরু হয়েছে। দুপুরে উৎসবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগদানের কথা রয়েছে। এ জন্য সকালে রাজধানীর কয়েকটি সড়কে যানচলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। কয়েকটি সড়কে যানচলাচল নিয়ন্ত্রণ করে ডাইভারশন দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে পুলিশ।

আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসবকে কেন্দ্র করে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও এর চারপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। শাহবাগ ও টিএসসি মোড়ে প্রস্তুত রাখা হয়েছে পুলিশের সাঁজোয়াযান। ইউনিফর্মের পাশাপাশি সাদা পোশাকে বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্যকে দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে।

সরেজমিনে শাহবাগ, মৎস্যভবন, হাইকোর্টের সামনের এলাকা, দোয়েল চত্বর, টিএসসি থেকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রতিটি প্রবেশপথে সতর্ক অবস্থায় দেখা গেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের।

ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার জাগো নিউজকে বলেন, আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব ঘিরে ব্যাপক জনসমাগম হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সে জন্য পুরো সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা হাতে নেয়া হয়েছে। এর বাইরে পুরো ঢাকা শহরেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে ডিএমপি।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়ার অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, অনুষ্ঠানস্থল, আশপাশসহ পুরো রাজধানীতেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

নিরাপত্তার স্বার্থে অনুষ্ঠানস্থলে আগতদের কোনোপ্রকার হ্যান্ডব্যাগ, ট্রলিব্যাগ, দাহ্য পদার্থ বা ধারালো কোনো বস্তু বহন না করা এবং কর্তব্যরত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। এছাড়া সর্বসাধারণকে অনুষ্ঠানস্থল এবং এর আশপাশের এলাকা দিয়ে ভারী বা হালকা যানবাহনসহ যাতায়াত পরিহারের অনুরোধ করা হয়েছে।

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া স্বাক্ষরিত এক প্রেস বার্তায় জানানো হয়, উৎসবের দিন শাহবাগ থেকে মৎস্যভবন পর্যন্ত সড়ক সর্বসাধারণের চলাচলের জন্য বন্ধ থাকবে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চারদিকের রাস্তায় যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

অনুষ্ঠানস্থলে প্রধানমন্ত্রীসহ ভিআইপিদের আগমন উপলক্ষে শনিবার ভোর থেকে অনুষ্ঠান শেষ না হওয়া পর্যন্ত কয়েকটি সড়কে ডাইভারশন দেয়া হবে। সড়কগুলো হচ্ছে বাংলামোটর, হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল মোড়, শাহাবাগ, কাঁটাবন, নীলক্ষেত, পলাশী, বকশিবাজার, চাঁনখারপুল, গোলাপশাহ মাজার, জিরো পয়েন্ট, পল্টন, কাকরাইল চার্চ, অফিসার্স ক্লাব, মিন্টু রোড।