ঢাকা, বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ , , ৬ সফর ১৪৪০

জাতির দাবি তারেক রহমানের ফাঁসি : এনামুল হক শামীম

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০১৮ ১১:২০ সকাল

আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, ২১ আগস্টে গ্রেনেড হামলার মূল উদ্দেশ্যে ছিল বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা চিরতরে শেষ করে দেয়া। যেমন ৭৫’র ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছিল। আর ২১ আগস্ট হামলার মাস্টার মাইন্ড তারেক রহমানের ফাঁসি চায় জাতি। ওই হামলার ঘটনায় আদালতে যেমন তৎকালীন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফজ্জামান বাবর জড়িত ছিল বলেই তাঁর ফাঁসির রায় হয়েছে। তেমনি তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াও তখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন বলেই তিনিও এই নারকীয় হামলার দায় এড়াতে পারে না। তাই খালেদা জিয়ারও বিচার চায় এদেশের মানুষ।
তিনি আরও বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার বিচারকে কখনো প্রভাবিত করিনি। তবে এদেশের জনগণ তারেক রহমানের যাবজ্জীবন নয়, ফাঁসি চায়। আর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে জর্জ মিয়া নাটক সাজিয়ে নিজের ছেলে দোসরদের বাঁচানোর জন্য খালেদা জিয়াও বিচার চায় জনগণ।
তিনি স্মৃতিচারণ করে বলেন, এখনও আমি রাতে ঠিকভাবে ঘুমাতে পারি না। কারণ, আমার শরীরে গ্রেনেডের ১৪ ষ্পিøন্টার বহন করতেছি। ওই হামলায় আহভি রহমান সহ অনেক নেতাকর্মী নিহত হয়েছিল। হাজারও নেতাকর্মী আমার মত এমন যন্ত্রণা বহন করছে। বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগকালে তিনি এসব কথা বলেন। গণসংযোগকালে তার সঙ্গে ছিলেন, নড়িয়া উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বেপারী, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান নাজমা মোস্তফা, পৌরসভার প্যানেল মেয়র আবু জাফর শেখ, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক জহির সিকদার, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা নূর এ আলম আশিক, নড়িয়া পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আসাদুজ্জামান বিপ্লব প্রমূখ।
এনামুল হক শামীম বলেন, বাংলাদেশের প্রয়োজনেই জনগণ শেখ হাসিনাকে বারবার ক্ষমতায় দেখতে চায়। শেখ হাসিনায় ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়, পদ্মা সেতু হয়, নড়িয়ায় বেড়িবাঁধের কাজ অনুমোদন হয়। তাই উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনা আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে। এজন্য দলের প্রতিটি নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।
এর আগে তিনি মাদীরপুর শিবচর পদ্মাপাড়ে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাস্থল পরিদর্শণ করেন। এরপর নড়িয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বাদশা শেখ শারিরিকভাবে অসুস্থ থাকায় তার শারিরিক অবস্থার খোঁজ নেন ও ছাত্রলীগ নেতা বাবুর বাবার করব জিয়ারত করেন।