ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ , , ৭ সফর ১৪৪০

নিহত জঙ্গি সাইফুলের বাবা কারাগারে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: আগস্ট ১৭, ২০১৭ ১:১০ দুপুর

খুলনা: জাতীয় শোক দিবসে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে ‘হামলা চেষ্টার আগে’ পুলিশের অভিযানে নিহত ‘জঙ্গি’ সাইফুল ইসলামের বাবা জামায়াত নেতা আবুল খয়েরকে কারাগারে পাঠিয়েছে খুলনার একটি আদালত। খুলনার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম নুসরাত জা‌বিন বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেন।

এছাড়া সাইফুলের বন্ধু আব্দুল্লাহ বিন মোসাদ্দেক সামিকেও কারাগারে পাঠিয়েছেন বিচারক। কারাগারে পাঠানো দুই জনকে ডুমু‌রিয়া থানায় ২০১৫ সা‌লের ১৯ ডি‌সেম্বর করা রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে সকালে ঢাকার পান্থপথে হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালে পুলিশের অভিযানের সময় ‘আত্মঘাতী’ বিস্ফোরণে নিহত হন সাইফুল ইসলাম। সাইফুল ছাত্র জীবনে শিবির কর্মী ছিলেন এবং তিনি ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে হামলার চেষ্টা করছিলেন বলে জানিয়েছেন আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক। কিন্তু গোয়েন্দাদের জালে আগেই ধরা পড়েন তিনি। পুলিশ তাকে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানালেও তিনি তা অগ্রাহ্য করে বিস্ফোরণ ঘটান। এই বিস্ফোরণ এতটাই শক্তিশালী ছিল যে হোটেলের দেয়াল এবং বারান্দার গ্রিল খুলে নিচে পড়ে যায়।

আইজিপি সাইফুলের পরিচয় জানানোর পর খুলনার ডুমুরিয়া থানা পুলিশ তার স্বজনদের বিষয়েও খোঁজ খবর শুরু করে। জানা যায় তার বাবা আবুল খয়ের স্থানীয় সাহস ইউনিয়ন জামায়াতের কোষাধ্যক্ষ। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ তাকে এবং সাইফুলের বন্ধ সামিকে গ্রেপ্তার করে।

সাইফুল সরকারি বিএল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তিনি খুলনার নেভি কলোনিতে একটি মেসে থাকতেন। গত ৭ আগস্ট একটি চাকরির সাক্ষাৎকার দিতে খুলনা থেকে ঢাকায় আসার কথা তিনি স্বজনদের জানান। যাওয়ার আগে তিনি নোয়াকাঠির বাড়ি ঘুরে গিয়েছিলেন। আর ঢাকায় আসার পর গত রোববার সাইফুল বাড়িতে যোগাযোগ করেন। সে সময় তিনি সোমবার বাড়িতে ফেরার ইচ্ছার কথা জানান। তার অপেক্ষায় থাকার সময় মঙ্গলবার তার আত্মঘাতী হওয়ার কথা জানতে পারেন স্বজনরা।