ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ , , ২ রবিউস সানি ১৪৪০

প্রধানমন্ত্রীকে গণসংবর্ধনা দেবে কওমি শিক্ষাবোর্ড

নিউজ ডেস্ক । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: অক্টোবর ২, ২০১৮ ৬:২৭ সকাল

কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসের সনদকে মাস্টার্স ডিগ্রির সমমান স্বীকৃতি দিয়ে জাতীয় সংসদে বিল পাস করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গণসংবর্ধনা দেবে কওমি শিক্ষাবোর্ড আল-হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া বাংলাদেশ।

সোমবার (১ অক্টোবর) চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে ওই শিক্ষাবোর্ডের সভাপতি ও হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

মঙ্গলবার (২ অক্টোবর) সকালে জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কওমি শিক্ষাবোর্ড ‘আল হাইআতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কাওমিয়া বাংলাদেশের সদস্য মাওলানা বাহাউদ্দীন জাকারিয়া।

এদিকে সোমবার (১ অক্টোবর) দুপুরে এ সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা বলা হলেও গতকাল দিনভর হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ বা এর আমির শাহ আহমদ শফীর হাটহাজারী মাদরাসা সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে এ সিদ্ধান্তের পক্ষে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

সূত্র জানায়, কওমি সনদের স্বীকৃতির বিল জাতীয় সংসদে পাস করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গণসংবর্ধনা দেয়ার জন্য ১৫ সদস্যের একটি বাস্তবায়ন কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে হাইয়াতুল উলইয়ার কো-চেয়ারম্যান মাওলানা আশরাফ আলীকে। তবে কবে নাগাদ এবং কোথায় এ সংবর্ধনা দেয়া হবে তা এখনও সুনির্দিষ্ট করা হয়নি।

১৫ সদস্যের কমিটিতে রয়েছেন আহ্বায়ক মাওলানা আশরাফ আলী, সদস্য মুফতি রুহুল আমীন, মুফতি ওয়াক্কাস, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মাওলানা মুসলেহুদ্দীন রাজু, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা আবদুল কুদ্দুস, মাওলানা মাহফুজুল হক, মুফতি নুরুল আমিন, আবদুল হালিম বোখারী, মাওলানা আরশাদ রাহমানী, মুফতি মুহাম্মদ আলী, মাওলানা আবদুল বছির।

উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদে কওমি মাদরাসাগুলোর দাওরায়ে হাদিসেরস (তাকমিল) সনদকে মাস্টার্স ডিগ্রি (ইসলামিক স্টাডিজ ও আরবি) সমমান প্রদান আইন-২০১৮’ পাস হয়।