ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ , , ৭ সফর ১৪৪০

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টার দায়ে ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: আগস্ট ২০, ২০১৭ ১১:৫৪ সকাল

ঢাকা: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার দায়ে ১০ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড, একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও তিনজনকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। এছাড়া ৯ জনকে একই ঘটনার বিস্ফোরক আইনের অন্য মামলায় ২০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের হত্যাচেষ্টা মামলাটিতে ১০ আসামিকে গুলি করে মৃত্যুদণ্ডাদেশ কার্যকর করতে বলেছেন ট্রাইব্যুনাল।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ওয়াসিম আক্তার ওরফে তারেক ওরফে মারফত আলী, রাশেদ ড্রাইভার ওরফে আবুল কালাম ওরফে রাশেদুজ্জামান ওরফে শিমন খান, ইউসুফ ওরফে মোসাহাব মোড়ল ওরফে আবু মুসা হারুন, শেখ ফরিদ ওরফে মাওলানা শওকত ওসমান, হাফেজ জাহাঙ্গীর আলম বদর, মাওলানা আবু বকর ওরফে হাফেজ সেলিম হাওলাদার, হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া, মুফতি শফিকুর রহমান, মুফতি আব্দুল হাই ও মাওলানা আব্দুর রউফ ওরফে আব্দুর রাজ্জাক ওরফে ওমর।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত মেহেদী হাসান ওরফে আব্দুল ওয়াদুদ ওরফে গাজী খানকে দশ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

আসামি আনিসুল ইসলাম, মহিবুল্লাহ ওরফে মফিজুর রহমান ও সারোয়ার হোসেন মিয়াকে ১৪ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডের পাশাপাশি দশ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছর করে কারাদণ্ডের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জঙ্গি নেতা মুফতি আব্দুল হান্নানের অন্য মামলায় ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় এ মামলা থেকে তাকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

কোটালীপাড়া থানার বিস্ফোরক আইনের মামলায় ২০ বছর করে সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- ইউসুফ ওরফে মোসাহাব মোড়ল ওরফে আবু মুসা হারুন (পলাতক), আনিসুল ইসলাম, মেহেদী হাসান ওরফে আব্দুল ওয়াদুদ ওরফে গাজী খান, ওয়াসিম আক্তার ওরফে তারেক ওরফে মারফত আলী, মহিবুল্লাহ ওরফে মফিজুর রহমান, মাহমুদ আজহার ওরফে মামুনুর রশিদ, রাশেদ ড্রাইভার ওরফে আবুল কালাম ওরফে রাশেদুজ্জামান ওরফে শিমন খান, শাহনেওয়াজ ওরফে আজিজুল হক ও শেখ এনামুল হক (পলাতক)।

রোববার (২০ আগস্ট) ঢাকার ২ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মমতাজ বেগম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভার কাছে ৭৬ কেজি ওজনের বোমা পুঁতে হত্যাচেষ্টা ও ৮০ কেজি ওজনের বোমা উদ্ধারের বিস্ফোরক আইনের মামলা দু’টির এ রায় ঘোষণা করেন।