ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ , , ২ রবিউস সানি ১৪৪০

প্রসঙ্গ : খাদ্যে ভেজাল; আলো আসবেই :: মাহবুব কবির মিলন

নিউজ ডেস্ক । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: মে ২৭, ২০১৮ ১:৫৫ দুপুর

ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে নেয়া :: সারাদেশে প্রায় সাড়ে সাতশত স্যানিটারি ইন্সপেক্টরকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক হিসেবে নিরাপদ খাদ্যের নিশ্চয়তা বিধানের জন্য। পর্যায়ক্রমে তাঁদের ট্রেনিং দেয়া হচ্ছে। তাঁদের সবাইকে আমার মোবাইল নাম্বার দেয়া হয়েছে যে কোন সমস্যায় পড়লে সরাসরি রিং দেবে। এই সাড়ে সাতশত আমার নাম্বার যারা জানেন তাঁদের অতিরিক্ত। বলা হয়েছে ২৪ ঘন্টা আমাকে পাবেন।

আমার শরীর এই লোড নেয়ার ক্ষমতার বাইরে। তবুও কেন নেয়া হয়েছে?

এক মহিলা ইন্সপেক্টর জানালেন, স্যার একদিন গ্রামে পড়ন্ত বিকালে গ্রামের এক জঙ্গলের পাশে দেখলাম বিক্রির উদ্দেশ্যে গরু জবাইয়ের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে ৪/৫ জন লোক মিলে। কিন্তু গরুটি মরা। ধমক দিলাম, কিন্তু কেউ পাত্তা দিচ্ছে না। সন্ধ্যা হয়ে আসছে। একা আমি, ভয় লাগছিল। কাকে জানাব বুঝতে পারছিলাম না।

বললাম, ওসি বা ইউএনও সাহেবকে কিংবা ইউপি চেয়ারম্যানকে জানাতে পারতেন। তিনি জানালেন, স্যার মাথা কাজ করছিল না। পরে ইউপি চেয়ারম্যানকে ফোন দিলাম।

এই সাড়ে সাতশত মানুষকে নাম্বার দিয়ে বলেছি, আমাকে জানাবেন। ৫ মিনিটের মধ্যে দেশের যে কোন ইউএনও বা ওসি সাহেবের কাছে আপনাদের সংবাদ পৌঁছে যাবে।

আমি কিছুটা বা বলা চলে বেশ অসুস্থ। রোজার আগের দিন সন্ধ্যায় বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছে গেলাম। খুব ভাল মানুষ। তাঁর সহকারী ডাক্তার সাহেব আমাকে দেখেই হেসে দিলেন। বললেন, আপনার সাথে ফেসবুকে যুক্ত আছি। তিনি জানেন, কতটা ভার নিয়ে আমাকে চলতে হচ্ছে। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার সাহেব সব শুনে বললেন, আপনার অতিরিক্ত স্ট্রেসের কারণে সব সমস্যা। ঘুমাতে হবে বেশি করে। তিনি ঔষধ দিলেন মাথা ঠাণ্ডা করার।

gpsgov.blogspot.com

সময় নেই ঘুমাবার। এই কয় মাসে স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি কিভাবে জড়িয়ে গেছে বড় থেকে ছোট সবাই এই ভেজালে। আগেই বলেছি ২০১৮ সালেই একটি আলোকিত অধ্যায় উপহার দেব জাতিকে। বাকি ছয়মাসে বড় মিয়াদের কিছু পণ্য লাইনে আনা যাবে ইনশাআল্লাহ।

বাবা মা পরিবার ফেলে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা একাকী জীবন বেছে নিতে হল এই অভিশাপ মুক্তির কাজ করার জন্য।

আপনারা কেউই আমাকে কিনতে পারবেন না , কখনোই না। কোনভাবেই দমাতে পারবেন না ইনশাআল্লাহ। এটাই আপনাদের পরাজয়। এটাই আমাদের বিজয়। এই সোনার বাংলার বিজয়।

অসংখ্য যোদ্ধা এগিয়ে আসছে। বাড়তেই থাকবে তাঁদের সংখ্যা।

আলো আসবেই। ছিনিয়ে আনা হবে সে আলো।

 

Mahbub Kabir Milon :: Member (Joint Secretary), Bangladesh Food Safety Authority at Government of Bangladesh

https://www.facebook.com/milonctg2012?hc_ref=ARQiU5qYLAX_-eMcXXwQ8fYOPUQ63aSk9U7Yom93ClAXhz4hdRoGrQGDNSu2RfR287M&fref=nf