ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ , , ৭ সফর ১৪৪০

রংপুরে হামলার ঘটনায় দু’টি মামলা, আটক ৪০

রংপুর প্রতিনিধি । সি এন এন বাংলাদেশ

আপডেট: নভেম্বর ১১, ২০১৭ ২:৫৫ দুপুর

রংপুরে শুক্রবারে (১০ নভেম্বর) হিন্দুদের গ্রামে হামলার ঘটনায় দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ বাদী হয়ে কোতোয়ালি ও গঙ্গাচড়া উপজেলার থানায় মামলা দু’টি দায়ের করেছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে করা দুই মামলায় অজ্ঞাত দুই হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন একথা জানিয়েছে।

হামলার ঘটনা তদন্ত করতে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষ। শনিবার থেকে এ কমিটি কাজ শুরু করবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুজ্জামান।

তিনি বলেন, ‘অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু রাফা মোহাম্মদ আরিফকে প্রধান করে গঠিত তিন সদস্যের তদন্ত কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সদরের পাগলাপীর সলেয়াসা এলাকায় সম্প্রতি টিটু রায় নামের এক তরুণ ফেসবুকে ধর্ম অবমাননা করে পোস্ট দেয় বলে অভিযোগ ওঠে। ওই তরুণের শাস্তির দাবিতে শুক্রবার জুমার নামাজের পর সলেয়াসা বাজার এলাকায় বিক্ষোভ সমাবেশ ডাকা হয়।

নামাজের পর কয়েকশ’ মানুষ সেখানে সমবেত হয়ে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় ওই সড়কের দু’পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে বিক্ষোভকারীদের রাস্তা ছেড়ে দেওয়ার আহ্বান জানায়। এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে তাদের কথা কাটাকাটি, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ বাধে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ৫০ রাউন্ড টিয়ার গ্যাসের শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এসময় পুলিশসহ আহত হন অন্তত ১৫ জন। পরে হাসপাতালে একজন মারা যান। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের একপর্যায়ে বিক্ষোভকারীরা ঠাকুরপাড়া গ্রামে ৮ থেকে ১০ হিন্দু বাড়িতে আগুন দেয় ও ভাংচুর চালায়।